শিরোনাম
“ঢাকার বুকে একখন্ড মাগুরা ” নামে সামাজিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ আজ হযরত কাসেম শাহ ( রহঃ)উফাত দিবস পালিত হবে। মাগুরা জেলা ও দায়রা জজ এর বিদায় সংবর্ধনা মাগুরায় সায়েম সোবহান আনভীর এর জন্মদিন পালিত আলাউদ্দিন আহমেদ’র স্বপ্নের নিবাস ‘প্যারেন্টস লজ’ এর শুভ উদ্বোধন আলাউদ্দিন আহমেদ শিক্ষাপল্লী পার্কে ওয়াজ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত আলাউদ্দিন আহমেদ শিক্ষাপল্লী পার্কে ওয়াজ ও দোয়া মাহফিল করলেন মদিনা বিশ^বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ কে এম শাহীন রেজা, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার নন্দলালপুর ইউনিয়নের আলাউদ্দিন নগরের আলাউদ্দিন আহমেদ শিক্ষাপল্লীর মাঠে গত ২৯ তারিখ রবিবার রাতে বিশেষ ওয়াজ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত বিশেষ ওয়াজ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে আলাউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে সকলের মধ্যমনি প্রধান বক্তা ছিল সূদুর সৌদি প্রবাসী মদিনা ইউনিভার্সিটির অধ্যক্ষ বিশ^ বরেণ্য আলেমে দ্বীন শায়েখ ড. আদনান আল খাতিরী (দা: বা:)। অসাম্প্রদায়িক দার্শনীক সমাজসেবক ও আলোকিত মানুষ দানবীর আলাউদ্দিন আহমেদ এর স্বপ্নের নিবাস ‘প্যারেন্ট লজ’ (রাজ প্রসাদ) নামের চোখ ধাঁধানো ব্যয় বহুল বাড়িটি দুপুরে উদ্বোধন করার পর প্রধান বক্তা ড. আদনান আল খাতিরী (দা: বা:) রাত ১০ ঘটিকার সময় তিনি তার ওয়াজ মাহফিল শুরু করেন। প্রধান বক্তার ওয়াজ শুনতে দুর দুরান্ত থেকে গাড়ী ভরে মুসলিম ধর্মপ্রান পুরুষ-মহিলার আগমন ছিল চোঁখে পড়ার মত। তিল পরিমান জায়গা ছিল না পার্কের মাঠেই নয় আলাউদ্দিন নগরেও। সরেজমিনে যেটি দেখা গেছে মাঠ ব্যতীত আলাউদ্দিন নগরের ওলিতে গলিতে ধর্মপ্রান মুসল্লিরা বসার জায়গা না পেয়ে দাড়িয়ে থেকে দোয় ও ওয়াজ শুনেছেন। আলাউদ্দিন আহমেদ প্রতি বছরই ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করেন, কিন্তু বিগত করোনা মহামারীর কারনে দুই বছর তা বন্দ ছিল। কিন্ত এবার সৌদি থেকে প্রধান বক্তা আসার কারনে প্রায় ২০ হাজারেরও বেশী ধর্মপ্রাণ মুসুল্লীগন উক্ত ওয়াজ মাহফিল শুনতে এসেছিল। উল্লেখ্য দোয়া ও ওয়াজ মাহফিল শুরু হয় আসর নামাজের পর থেকে। আসর নামাজের পরে পর্যায়ক্রমে ওয়াজ মাহফিলে অংশ নেয় ঢাকা গাজীপুরের জামি আতুল উলূমিল ইসলামিয়া প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও আল্লামা মুফতি নূরুল ইসলাম, দা: বা:, চুয়াডাঙ্গা জেলার কালিয়া বকরী মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুফতি আলি আকবর, কুমারখালী উপজেলার রেলওয়ে জামে মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা আব্দুস সালাম বিন ইউসুফ, আলাউদ্দিন নগর বাহার জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোঃ আতিয়ার রহমান, আলাউদ্দিন নগর বাহারুল উলুম হাফেজিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল হাফেজ ক্বারী মোঃ ইলিয়াস হোসাইন। উল্লেখিত সকলের ওয়াজ শেষে আলাউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে সৌদি আরবের মদিনা ইউনিভার্সিটির অধ্যক্ষ বিশ^ বরেণ্য আলেমে দ্বীন শায়েখ ড. আদনান আল খাতিরী (দা: বা:) রাত ১০ ঘটিকার সময় তিনি তার বক্তব্য শুরু করেন এ সময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ৫নং নন্দলালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান খোকন ও আলাউদ্দিন আহমেদ’র পরিবারের সকল সকল সদস্যরা। আশুগঞ্জে মহান মুক্তিযুদ্ধের সম্মুখ সমরের স্মৃতি স্তম্ভ এবার দখলদারদের থাবায়! নেপথ্যে জনপ্রতিনিধি উদ্বোধন না হতেই আশুগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে ফাটল ‍ও ধস ‘নিখোঁজ’ ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আসিফ,তদন্ত কমিটি গঠন
বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন
add

মাগুরায় মধুমতি নদীতে দেড় কিলোমিটার আড়বাধ অপসারণ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ / ৭৬১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে
প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৫ জানুয়ারী, ২০২১
add

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার পলাশবাড়িয়া ইউনিয়নের চর দেউলি এলকায়  পদ্মার শাখা মধুমতি নদীতে প্রায় দেড় কিলোমিটার  বাঁশের বেড়ার অবৈধ আড়বাধ দিয়ে মাছ শিকার  করছেন স্থানীয় প্রভাবশালী।  নদীর এই এলাকায় একটি চক্র কয়েক বছর ধরেই এভাবে বাঁধ দিয়ে অবৈধভাবে মাছ শিকার করে আসছে। বাঁধ দেওয়ার সঙ্গে নদীর দুই পারের ফরিদপুরের বোয়ারমারি ও মাগুরা উভয় জেলার লোকজন জড়িত। খবর পেয়ে মহম্মদপুর উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি) আজ মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) সকালে বাঁধ অপসারণ করেন। সহকারী কমিশনার (ভূমি) হরেকৃষ্ণ অধিকারী জানান, মৎস্য সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী, নদী বা জলাধারের স্বাভাবিক প্রবাহ ব্যাহত করে এমন কোনো বাঁধ বা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা যাবে না, যাতে করে মাছের স্বাভাবিক চলাচল ব্যাহত হয়। মাছের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে মাছ শিকার করা দণ্ডনীয় অপরাধ।

তিনি আরও জানান, প্রশাসন, পুলিশ ও মৎস্য বিভাগের সহযোগিতায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে বিশাল এই বাঁধ অপসারণ করা হয়েছে। বাঁধের প্রায় দুইহাজারের বেশি বাঁশ ও দুই হাজার মিটার বিভিন্ন প্রকৃতির জাল জব্দ করা হয়েছে। অভিযান পরিচালনা কালে কেউ না থাকায় কাউকে আটক বা জেল জরিমানা করা সম্ভব হয়নি।

সরেজমিনে দেখা যায়, চর দেওলি গ্রামের পাশে পূর্ব থেকে পশ্চিম দিকে বাঁধ দেওয়া হয়েছে। বড় বড় বাঁশ লম্বা ও আড়াআড়ি করে নদীতে পুঁতে রাখা হয়েছে। নদীর এপার থেকে প্রায় দেড় কিলোমিটার লম্বা এই বাঁশের বেড়া। বাঁশের সঙ্গে ছোট ও বড় বিভিন্ন ফাঁসের জাল পেতে রাখা হয়েছে।

মঙ্গলবার  সরেজমিনে ওই বাঁধের পাশে মাঝ নদীতে একটি নৌকা বাঁধা ছিল। কিন্তু নৌকায় কোনো মানুষ ছিল না। ফলে এর সঙ্গে জড়িত কারা, তা জানতে স্থানীয় সাত-আটজনের সঙ্গে কথা বলেন এই প্রতিবেদক। তবে তাঁদের কেউই এ বিষয়ে তথ্য দিতে চাননি। কেউ বলেন, বাঁধ দেওয়ার সঙ্গে জড়িত লোকজনকে তাঁরা চেনেন না। অন্যরা বলেন, নদীর ওপারে অবস্থিত ফরিদপুরের লোকজন এই বাঁধ দিয়েছেন।

তবে স্থানীয় একটি সূত্রে জানা যায়, ইউনিয়নের কালিশংকরপুর এলাকার তিনজন ব্যক্তি এই বাঁশের বেড়া দেওয়ার নেতৃত্বে আছেন। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন আশপাশের আরও কয়েকজন। এর সঙ্গে জড়িত লোকজন সন্ত্রাসী-প্রকৃতির। ফলে এলাকার লোকজন তাঁদের বিষয়ে কথা বলতে ভয় পান।

পলাশ বাড়িয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও শিক্ষক এম রেজাউল করিম চুন্নু বলেন, নদী দিয়ে প্রতিদিন কয়েকশ’ নৌযান চলাচল করে। বাঁধের কারণে নৌযান চলাচল মারাত্মক ব্যহত হয়। বাঁধে মাছ ধরতে কারেন্ট জালের সাথে ঘন নেটের জাল ব্যবহার করা হয়। এতে মাছের উৎপাদন ও বংশবৃদ্ধি ক্ষতিগ্রস্থ হয়। এছাড়া নদীতে স্বাভাবিক পানি প্রবাহ ব্যহত হওয়ায় চর পড়ে ও পাড় ভাঙন কবলিত হয়।

মহম্মদপুর উপজেলার মৎস্য কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্বে) ফেরদৌসি আক্তার  বলেন, নদী ও মৎস্য আইনে বাঁধ দেওয়া দণ্ডনীয় অপরাধ। মৎস্য পরিবেশ ও জীব বৈচিত্রের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। এজন্য মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে  অভিযান চালিয়ে বাঁশের বেড়া  উচ্ছেদ করা হচ্ছে।

বি/কে, মাগুরা নিউজ টুডে।

add

আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

বিশ্বে

আক্রান্ত
সুস্থ
মৃত্যু

আলাউদ্দিন আহমেদ শিক্ষাপল্লী পার্কে ওয়াজ ও দোয়া মাহফিল করলেন মদিনা বিশ^বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ কে এম শাহীন রেজা, কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি ॥ কুষ্টিয়া কুমারখালী উপজেলার নন্দলালপুর ইউনিয়নের আলাউদ্দিন নগরের আলাউদ্দিন আহমেদ শিক্ষাপল্লীর মাঠে গত ২৯ তারিখ রবিবার রাতে বিশেষ ওয়াজ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত বিশেষ ওয়াজ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে আলাউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে সকলের মধ্যমনি প্রধান বক্তা ছিল সূদুর সৌদি প্রবাসী মদিনা ইউনিভার্সিটির অধ্যক্ষ বিশ^ বরেণ্য আলেমে দ্বীন শায়েখ ড. আদনান আল খাতিরী (দা: বা:)। অসাম্প্রদায়িক দার্শনীক সমাজসেবক ও আলোকিত মানুষ দানবীর আলাউদ্দিন আহমেদ এর স্বপ্নের নিবাস ‘প্যারেন্ট লজ’ (রাজ প্রসাদ) নামের চোখ ধাঁধানো ব্যয় বহুল বাড়িটি দুপুরে উদ্বোধন করার পর প্রধান বক্তা ড. আদনান আল খাতিরী (দা: বা:) রাত ১০ ঘটিকার সময় তিনি তার ওয়াজ মাহফিল শুরু করেন। প্রধান বক্তার ওয়াজ শুনতে দুর দুরান্ত থেকে গাড়ী ভরে মুসলিম ধর্মপ্রান পুরুষ-মহিলার আগমন ছিল চোঁখে পড়ার মত। তিল পরিমান জায়গা ছিল না পার্কের মাঠেই নয় আলাউদ্দিন নগরেও। সরেজমিনে যেটি দেখা গেছে মাঠ ব্যতীত আলাউদ্দিন নগরের ওলিতে গলিতে ধর্মপ্রান মুসল্লিরা বসার জায়গা না পেয়ে দাড়িয়ে থেকে দোয় ও ওয়াজ শুনেছেন। আলাউদ্দিন আহমেদ প্রতি বছরই ওয়াজ মাহফিলের আয়োজন করেন, কিন্তু বিগত করোনা মহামারীর কারনে দুই বছর তা বন্দ ছিল। কিন্ত এবার সৌদি থেকে প্রধান বক্তা আসার কারনে প্রায় ২০ হাজারেরও বেশী ধর্মপ্রাণ মুসুল্লীগন উক্ত ওয়াজ মাহফিল শুনতে এসেছিল। উল্লেখ্য দোয়া ও ওয়াজ মাহফিল শুরু হয় আসর নামাজের পর থেকে। আসর নামাজের পরে পর্যায়ক্রমে ওয়াজ মাহফিলে অংশ নেয় ঢাকা গাজীপুরের জামি আতুল উলূমিল ইসলামিয়া প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও আল্লামা মুফতি নূরুল ইসলাম, দা: বা:, চুয়াডাঙ্গা জেলার কালিয়া বকরী মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা মুফতি আলি আকবর, কুমারখালী উপজেলার রেলওয়ে জামে মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা আব্দুস সালাম বিন ইউসুফ, আলাউদ্দিন নগর বাহার জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোঃ আতিয়ার রহমান, আলাউদ্দিন নগর বাহারুল উলুম হাফেজিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল হাফেজ ক্বারী মোঃ ইলিয়াস হোসাইন। উল্লেখিত সকলের ওয়াজ শেষে আলাউদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে সৌদি আরবের মদিনা ইউনিভার্সিটির অধ্যক্ষ বিশ^ বরেণ্য আলেমে দ্বীন শায়েখ ড. আদনান আল খাতিরী (দা: বা:) রাত ১০ ঘটিকার সময় তিনি তার বক্তব্য শুরু করেন এ সময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, ৫নং নন্দলালপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান খোকন ও আলাউদ্দিন আহমেদ’র পরিবারের সকল সকল সদস্যরা।

বাংলাদেশে কোরোনা

সর্বশেষ (গত ২৪ ঘন্টার রিপোর্ট)
আক্রান্ত
মৃত্যু
সুস্থ
পরীক্ষা
সর্বমোট